সামাজিক ও মানবিক কাজে অবদান রাখায় “সম্মাননা স্মারক” পেলেন রাজিয়া সামাদ ডালিয়া

0
92

ডেস্ক : ২৩ সেপ্টেম্বর বুধবার  রাতে রক্তসৈনিক বাংলাদেশ এর সম্মানিত সভাপতি জনাব,  রাজিয়া সামাদ ডালিয়ার হাতে সম্মাননা স্মারক তুলে দেন রক্তসৈনিক বাংলাদেশ এর প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক, বিডি ক্লিন শেরপুরের জেলা সমন্বয়ক, শেরপুর গ্র্যাজুয়েট ক্লাব এর সভাপতি মোঃ আল আমিন রাজু ও রক্তসৈনিক শেরপুর জেলা টিমের দায়িত্বশীগণ।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন জনাব, মোঃ শামিম হোসেন উপদেষ্টা মন্ডলী সদস্য রক্তসৈনিক,বিডি ক্লিন ও শেরপুর গ্র্যাজুয়েট ক্লাব, শেরপুর, এবং শিক্ষা ও মানব সম্পদ বিষয়ক সম্পাদক শেরপুর জেলা আওয়ামীলীগ। আবুল কালাম আজাদ উপদেষ্টা ও আহবায়ক জন উদ্যোগ শেরপুর। মোঃ মেহেদী হাসান শামীম, সভাপতি, মো:সাইফুল ইসলাম সাইফ, সহ সভাপতি, মোঃ আল আমিনসহ সভাপতি,  রইচ উদ্দীন হৃদয় সহ সভাপতি, আব্দুল আলীম হক সহ সভাপতি, অন্তিপ অনিক, সাধারণ সম্পাদক, আল আমিন যুগ্ম, সাধারণ সম্পাদক, তানভীর মাহতাব যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, লাবিব হাসান স্বপন যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, নাঈম রেদোয়ান রাতুলযুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, আব্দুল ওয়াদুদধর্ম বিষয়ক সম্পাদক, রক্তসৈনিক বাংলাদেশ, শেরপুর জেলা শাখা । কার্যকরি সদস্য তাহমিনা জলি,মহৎ। মোঃ সাজিদুর হাসান শান্ত, সভাপতি , পি.কে.এস দ্বীপন সিনিয়র সহ সভাপতি, জাকিরুল ইসলাম সহ সভাপতি রক্তসৈনিক বাংলাদেশ শ্রীবরদী উপজেলা শাখা।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন মমিনুল ইসলাম মনিন সাধারণ সম্পাদক পাতা বাহার খেলাঘর আসর, শেরপুর, সোহাগি আক্তার, সভাপতি ডিভাইন হেল্পারস অব বাংলাদেশ, শেরপুর জেলা শাখা। আজকের তারুণ্য সেচ্ছাসেবী সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা রবিউল ইসলাম রতন প্রমূখ। পরে অন্যান্য স্বেচ্ছাসেবী  সংগঠনের সকল নেতৃবৃন্দ সম্মাননা ক্রেষ্ট ও ফুলেল শুভেচ্ছা জানান।

এসময় রক্তসৈনিক বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক আল আমিন রাজু, মানবতার কান্ডারী জনাব, রাজিয়া সামাদ ডালিয়ার সেই ১৯৮৪ সালে শেরপুর আসার পর থেকে অদ্যাবদি মানুষর সেবায় বিশেষ অবদান রাখায় তার সেসব মহতি কাজের স্মৃতিচারণ শেষে শেরপুরের মাদার তেরেসা হিসেবে উল্লেখ করেন।

পরে জনাব রাজিয়া সামাদ ডালিয়া সকল স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের উদ্দেশ্যে  বলেন সকল স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন গুলো যেহেতু মানুষের কল্যানে কাজ করে তাই হিংসা ভুলে মিলে মিলে কাজ করতে হবে বিশেষ করে পরিচ্ছন্নতার দিকে সবাই সচেতন করতে হবে।