শেরপুরে মুদি ব্যবসা উন্নয়নে তথ্য ভিত্তিক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

0
340

১৯ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার বিকালে হোটেল আইসার ইন এ ইউরোপীয় ইউনিয়নের সহযোগীতায় শিফট প্রকল্পের অধিনে বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতির আয়োজনে ব্যবসায় প্রযুক্তি দিন দিন উন্নতি শ্লোগান বাস্তবায়ন করতে শেরপুর মুদি ব্যবসা উন্নয়নে তথ্য ভিত্তিক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। আলোচনা সভায় নারী ও ক্ষুদ্র দোকানির ব্যবসা উন্নতির জন্য চাহিদা ভিত্তিক জ্ঞান, ডিজিটাল প্রযুক্তির ব্যবহার, আধুনিক ব্যবসার কলাকৌশল, ট্রেড লাইসেন্স, ভ্যাট আইন, ভোক্তা অধিকার উদ্ভাবন, এসএমই লোন, ডিজিটাল লেনদেন, উদ্ভাবনী কার্যক্রম এবং প্রযুক্তিবান্ধব ব্যবসা সম্প্রসারণ বিষয়ে আলোচনা হয়েছে।

বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতির সভাপতি হেলাল উদ্দিনের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতির মহাসচিব কাইয়ুম তালুকদার, এফবিসিসিআই পরিচালক হাফেজ হারুন, জামালপুর দোকান মালিক সমিতির সভাপতি মিজানুর রহমান, শেরপুর চেম্বার অব কমার্স এর সিনিয়র সহ-সভাপতি প্রকাশ দত্ত, উইমেন চেম্বার অব কমার্স এর সহ-সভাপতি নাসরিন রহমান, শেরপুর জেলা জাতীয় মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান শামছুন্নাহার কামাল প্রমুখ।

আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন- এগিয়ে যাচ্ছে প্রযুক্তি এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। প্রযুক্তির সাথে তালমিলিয়ে ব্যবসা বাণিজ্য কেও এগিয়ে নিতে হবে নতুবা উন্নতি সম্ভব নয়। প্রযুক্তির কারণে হিসাব, সঞ্চয়, লেনদেন, যোগাযোগ সহ প্রভৃতি সহজ হয়েছে। ট্রেড লাইসেন্স করার গুরুত্ব উল্লেখ করে বলেন ব্যবসার প্রথম বৈধতা হলো ট্রেড লাইন্সেন। তাই ট্রেড লাইন্সেন করতে হবে এবং বছর বছর নবায়ন করতে হবে। ব্যবসা বৃদ্ধির জন্য প্রয়োজন অনুযায়ী ঋণ নিতে হবে এবং সময় মতো পরিশোধ করতে হবে। লেনদেন ঠিক রাখতে হবে এবং সকলের সাথে সুসম্পর্ক গড়তে হবে। সৎ ভাবে ব্যবসা পরিচালনা করতে পারলে পরিবারপরিজন নিয়ে সুখে থাকা যাবে। নারী ও ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের প্রয়োজনীয় ট্রেনিং এর ব্যবস্থা করতে হবে। 

আলোচনা সভায় বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতির সভাপতি হেলাল উদ্দিন বলেন- ডিজিটাল প্রযুক্তি এগিয়ে যাচ্ছে ব্যবসাকেও প্রযুক্তিবান্ধব করতে হবে। প্রযুক্তির ব্যবহারে ব্যবসা হয়ে উঠবে আরও সহজ ও ভোগান্তি বিহিন। তিনি ব্যবসায়ীদের সৎ এবং বৈধ উপায়ে ব্যবসা করা, ওজনে কম না দেওয়া, মেয়াদোত্তীর্ণ পণ্য বিক্রি না করা, মার্চেন্ট একাউন্টের মাধ্যমে লেনদেন করা, অ্যাপস ব্যবহারের মাধ্যমে হিসাব রাখা, সরকারের নিয়ম মেনে ভ্যাট-ট্যাক্স দেওয়ার পরামর্শ দেন। তিনি উল্লেখ করেন নতুন ভ্যাট আইন অনুযায়ী বার্ষিক ৫০ লক্ষ টাকার উপরে ব্যবসা করলে সরকারকে ভ্যাট দিতে হবে। ব্যাংক গুলো থেকে যেন নারী ও ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা এসএমই লোন গ্রহণ করতে পারে এজন্য জেলা চেম্বার অব কমার্স কার্যকর ভূমিকা রাখতে পারে।