দুধের চাহিদা মেটাতে ’মন্ডা’

0
37

‘মাংস খেলে মাংস বাড়ে
ডিমে বাড়ে বল,
দুধ খেলে বুদ্ধি বাড়ে
শাকে বাড়ে মল্।’

শারীরিক ও মানুষিক বিকাশে দুধ পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ খাবার। গরুর দুধ কে বলা হয় শক্তি উৎস। প্রথম আলো সূত্রে জানা যায়, সুস্থ থাকতে ”যুক্তরাজ্যে বছরে ২৪২ কেজি দুধ পান করে জনপ্রতি ”। দুধের অভাবে রোগব্যাধির হার বাড়ে এবং রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে। দুঃখজনক হলেও সত্য অনেকে তরল দুধ খেতে পারে না। তাহলে কি দুধে থাকা প্রোটিন, ক্যালসিয়াম ও ভিটামিন সি পুষ্টিগুণ থেকে বঞ্চিত হবে?

এমন লোকদের জন্য দুধের চাহিদা মেটাতে মন্ডা হতে পারে আদর্শ খাবার। মন্ডার মূল উপাদান গুরুর দুধ। যেহেতু টাটকা দুধ (দিনের দুধ দিনে) ব্যবহার করা হয় মন্ডা তৈরিতে এবং অতিরিক্ত (এলাচি গুড়া ও চিনি ব্যতীত) কিছু মেশানো হয় না। তাই বলা যায় দুধের পুষ্টিগুণ নষ্ট হওয়ার সম্ভাবনা কম। যদি লক্ষ্য করেন তাহলে দেখতে পাবেন গ্রাম অঞ্চলে শহরের তুলনায় দুধ খাওয়ার হার বেশি। বিশেষ করে বৃদ্ধরা নিয়মিত দুধ পান করে, দুধ দিয়ে তারা নিয়মিত ভাত খায়। তাই তাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বেশি। অর্থাৎ তাদের রোগ বালাই কম হয়। এ ছাড়াও মন্ডা উৎপাদনে ব্যবহার করা হয় ছানা, ক্ষীর, এলাচিগুড়া ও চিনি। তাই দুধের ঘাটতি পূরণে বিকল্প হতে পারে মন্ডা