কৃষি অর্থনীতিতে জেলা ওয়েবসাইটের সম্ভাবনা

0
139
কৃষি পর্যটন

মোঃ দেলোয়ার হোসেন : মানব সৃষ্টির পর থেকে পেশার উৎপত্তি। চাহিদা পূরণের জন্যে নির্ভর হতে হয়েছে পেশায়। কৃষি পেশা পৃথিবীর প্রথম পেশা। মানুষ বাড়ার সাথে পেশাও বেড়েছে। যারা যে অঞ্চলে বসবাস শুরু করেছে সে অঞ্চলে চাহিদা ও সুযোগ থেকে সৃষ্টি হয়েছে নতুন নতুন পেশা। যেমন: রাজমিস্ত্রি পেশা আদমি যুগে ছিল না। যখন বিল্ডিং নির্মানের সম্ভবানা ও সুযোগ তৈরি হয়েছে তখনি সৃষ্টি হয়েছে রাজমিস্ত্রি পেশা। যখন কম্পিউটার ও ইন্টারনেট সৃষ্টি হয়েছে তখনি ই-কমার্স পেশার সৃষ্টি হয়েছে। আজ আলোচনা করবো কৃষি পেশা নিয়ে।

কৃষি আমাদের প্রধান পেশা। দেশের প্রায় ৮০% মানুষ কোন না কোন ভাবে এ পেশার সাথে জড়িত। সময়ের সাথে তাল মিলিয়ে আপডেট হচ্ছে এ পেশা। একসময় হাল চাষ হতো সিং দিয়ে তারপর লাঙ্গলে আর বর্তমানে মেশিনে তথা আধুনিক যন্ত্রপাতি দিয়ে। কৃষিতে রয়েছে হাজার হাজার ফসলের সম্ভার। জেলা ওয়েবসাইটের মাধ্যমে কিছু ফসল প্রমোশন ও বিক্রি করে ভুমিকা রাখা সম্ভব অর্থনীতিতে। যেমন: সরিষা। শাক, মধু, তেল, খৈল ও জ্বালানি সংগ্রহ করা যায় সরিষা থেকে। শাক, খৈল আর জ্বালানি স্থানীয় বাজারে বিক্রি করলেও মধু এবং তেল প্রমোশন ও বিক্রি করা সম্ভব জেলা ওয়েবসাইটের মাধ্যমে। এভাবে যে জেলায় যে পণ্য বেশি উৎপাদন হয় তা অন্য জেলায় ছড়িয়ে দেওয়া যাবে খুব সহজে। এতে জেলার কৃষি অর্থনীতি সমৃদ্ধ হবে এবং বেকারত্ব হ্রাস পাবে।